প্রকাশের সময়: ১২:০৬ পূর্বাহ্ণ | সোমবার, নভেম্বর ১৩, ২০১৭
Close [X]

বরুড়ায় নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে অবৈধ ভাবে পল্লী বিদ্যুৎতের লাইন নির্মান

বরুড়া প্রতিনিধিঃ- বরুড়ায় নিয়ম নীতির কোন তোয়াক্কা না করে অবৈধভাবে পল্লী বিদ্যুতের লাইন নির্মান করছে বরুড়া পল্লী বিদ্যুৎ অফিস। ভোক্তভোগী উপজেলার ভাউকসার ইউনিয়নের চোত্তাপুকুরিয়া গ্রামের মোল্লা বাড়ির বাসিন্দা মৃত মো. শরাফত আলীর ছেলে মো. শাহজাহান মাষ্টার জানান, গত ২০১৬ইং সালের ২৮ শে ডিসেম্বর আমার কর্মস্থল সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলার আজিজপুরে অবস্থান কালে আমার বসত ভিটার উপর দিয়ে পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ তিন তার বিশিষ্ট্য ৩০০ মিটারের একটি নতুন লাইন স্থাপন করে এবং আমার বাড়ির ৩৮টি মূল্যবান গাছ কেটে ফেলে। এরপর চলতি বছরের ১লা এপ্রিল বাড়িতে এসে এই পরিস্থিতি দেখতে পেয়ে প্রথমে কুমিল্লা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ২(বরুড়া) অফিসে এই ঘটনার লিখিত প্রতিবাদ জানাই, কিন্তু কোন রকম সুরাহা না পেয়ে চলতি বছরের ৯ই এপ্রিল কুমিল্লা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ১ (চান্দিনা) জি এম কে লিখিত অভিযোগ করি, ২৭ শে সেপ্টেম্বর কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মহোদয় বরাবর অভিযোগ দায়ের করি এবং তিনি ৩ অক্টোবর আর ই বি কুমিল্লাকে আলাপ করে সিদ্ধান্ত নেওয়ার অনুরোধ জানান। একই দিন ২৭ সেপ্টেম্বর জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বরাবর আরো একটি লিখিত অভিযোগ করি , তিনিও কুমিল্লা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ১ (চান্দিনা) এর জি এম কে বিষয়টি তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য অনুরোধ করেন। কিন্তু সকলের অনুরোধ উপেক্ষা করে গত ১৪ই অক্টোবর ২০১৭ইং শনিবার বিকাল আনুমানিক ৪টার দিকে বরুড়া অফিসের ডি জি এম ও পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের লোকজন গিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ লাইনটি চালু করে।

'সংবিধান charbhadrason mahbubul hasan pinku news of bangladesh newsofbangladesh newsofbangladesh.com newsofbangladesh.net আইন পরিবর্তন মিনিটের ব্যাপার' আফজাল হোসেন খান পলাশ ঐক্যফ্রন্টের ১৬ জনের নাম চূড়ান্ত খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে দলের মানববন্ধন চলছে চরভদ্রাসনের হাট বাজারে মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্যের ছড়াছড়ি ; স্বাস্থ্য ইন্সপেক্টরের তদারকি নেই চরভভদ্রাসন জাতীয় নির্বাচন নিউজ অব বাংলাদেশ নিউজ অব বাঙ্গাদেশ পকেটে প্রশ্ন নিয়ে কেন্দ্রের বাইরে শিক্ষক ফরিদপুর জেলা ফরিদপুর যুবদল ফরিদপুর রাজনীতি বাংলাদেশ ক্রিকেট বিএনপির প্রতি কঠোরই থাকবে আ.লীগ মাহবুবুল হাসান পিংকু সাংবাদিক ফরিদপুর ৭ দফার ভিত্তিতে গণভবনে সংলাপ ‘রাস্তায় গেলে মারও খেতে হতে পারে’!