প্রকাশের সময়: ১১:৩৫ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, নভেম্বর ২৩, ২০১৮
Close [X]

ব্যাংকগুলোর কাছে ১০০ কোটি টাকার কম্বল দাবী আচরন বিধির লঙ্ঘন: রিজভী

নির্বাচনের আগে প্রধানমন্ত্রীর নামে ব্যাংকগুলোর কাছ থেকে ১০০ কোটি টাকার কম্বল দাবী নির্বাচনী আচরন বিধির লঙ্খন বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।
শুক্রবার সকালে দলের নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এই মন্ত—ব্য করেন।

রিজভী বলেন,“ নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে সরকার সকল সরকারী প্রতিষ্ঠানকে নির্লজ্জভাবে ব্যবহার করছে। এই ব্যবহার হচ্ছে বেপরোয়া ও নির্বিচারভাবে। প্রধানমন্ত্রীর নাম ব্যবহার করে ‘বাংলাদেশ এ্যাসোসিয়েশন অব ব্যাংক’ সদস্য ব্যাংকগুলোর কাছে আগামী ১২ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রায় একশো কোটি টাকার কম্বল দাবি করেছে। গত ২০ নভেম্বর ব্যাংক এ্যাসোসিয়েশনের এক সভায় সিদ্ধান্তের বরাত দিয়ে আগামী ২৭ নভেম্বর গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে নমূনা কম্বল এবং পরের পনের দিনের মধ্যে পুরনো ব্যাংকগুলোর কাছে ৫০ হাজার এবং নতুন ব্যাংকগুলোর কাছ থেকে ১৫ হাজার কম্বল চাওয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রীর নাম ব্যবহার করে ত্রাণের নামে ব্যাংকগুলোর কাছে কম্বল দাবি নির্বাচনী আচরণবিধির পুরোপুরি লঙ্ঘন। প্রধানমন্ত্রীর বরাত দিয়ে ব্যাংক মালিকগুলোর কাছে চিঠি পাঠানোর ফলে কেউ মুখ খুলতেও সাহস পাচ্ছে না। নির্বাচনকে প্রভাবিত করতে রাষ্ট্রযন্ত্রকে পারিবারিক সম্পত্তির মতো ব্যবহার করছে প্রধানমন্ত্রী। আমরা এর নিন্দা ও ধিক্কার জানাই।”

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘‘ বৃহস্পতিবার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সভায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেছেন, কোনো কর্মকর্তাকে বদলী করা হবে না। বিরোধী দলগুলোর পক্ষ থেকে বিতর্কিতদের সরানোর আহবানের বিপরীতে সিইসির এই ধরনের বক্তব্য দলবাজ কর্মকর্তাদের আরো বেপরোয়া করে তুলবে। ওই সভায় সিইসির নির্দেশনাসমূহ ও উপস্থিত কিছু পুলিশ কর্মকর্তার বক্তব্যে মনে হয় উভয় পক্ষই সরকারের অনুকুলে একতরফা নির্বাচনেরই একটা গোপন ছক তৈরি করে রেখেছে। অবস্থাদৃষ্টে মনে হয়,সরকারের অনুকুলে সমতল ভুমি নির্মান করতে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন ইসি। আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই, বিতর্কিত ও দলবাজ পুলিশ ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের প্রত্যাহার করতে হবে, নিরপেক্ষ কর্মকর্তাদের দিয়ে প্রশাসন সাজাতে হবে।”
প্রধানমন্ত্রী থেকে মন্ত্রীরা তফসিল ঘোষণার পরও নির্বাচনী আচরণ বিধি ভঙ্গের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনের ‘নির্বিকার’ ভুমিকারও কঠোর সমালোচনা করেন রিজভী।

নির্বাচন থেকে দূরে রাখতেই মনোনয়ন প্রত্যাশীদের গ্রেপ্তার করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন রুহুল কবির রিজভী।
তিনি বলেন, ‘‘ মনোনয়ন প্রত্যাশী একজনকে একেবারে যশোরে আবু বকর আবুকে জীবন্ত সরিয়ে দেয়া হয়েছে। ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরী, এহছানুল হক মিলন এ ধরনের অনেককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। উদ্দেশ্য একটাই নির্বাচন থেকে দূরে রাখা।”
ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী, এহছানুল হক মিলনের অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান রিজভী।

সংবাদ সম্মেলনে চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আবদুস সালাম, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, কেন্দ্রীয় নেতা আবদুস সালাম আজাদ, আসাদুল করীম শাহিন, তাইফুল ইসলাম টিপু, মুনির হোসেন, আশরাফউদ্দিন বকুল প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

'সংবিধান charbhadrason mahbubul hasan pinku news of bangladesh newsofbangladesh newsofbangladesh.com newsofbangladesh.net আইন পরিবর্তন মিনিটের ব্যাপার' আফজাল হোসেন খান পলাশ ঐক্যফ্রন্টের ১৬ জনের নাম চূড়ান্ত খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে দলের মানববন্ধন চলছে চরভদ্রাসনের হাট বাজারে মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্যের ছড়াছড়ি ; স্বাস্থ্য ইন্সপেক্টরের তদারকি নেই চরভভদ্রাসন জাতীয় নির্বাচন নিউজ অব বাংলাদেশ নিউজ অব বাঙ্গাদেশ পকেটে প্রশ্ন নিয়ে কেন্দ্রের বাইরে শিক্ষক ফরিদপুর জেলা ফরিদপুর যুবদল ফরিদপুর রাজনীতি বাংলাদেশ ক্রিকেট বিএনপির প্রতি কঠোরই থাকবে আ.লীগ মাহবুবুল হাসান পিংকু সাংবাদিক ফরিদপুর ৭ দফার ভিত্তিতে গণভবনে সংলাপ ‘রাস্তায় গেলে মারও খেতে হতে পারে’!